রাজনীতি

ইউপি নির্বাচনে সহিংসতার দায় প্রার্থীদের: সিইসি

পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচনে প্রশাসনের কোনো দুর্বলতা ছিল না বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা। বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) সোনারগাঁও হোটেলে ভোটার তালিকায় পরিচয়হীনদের পিতা-মাতার নাম লিপিবদ্ধকরণে জটিলতা নিরসন শীর্ষক কর্মশালা শেষে তিনি সাংবাদিকদের কাছে এ কথা বলেন।

এ সময় তিনি নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদারের সমালোচনা করে বলেন, সব সহিংসতার দায় প্রার্থীদের। কমিশনকে বিতর্কিত করাই উদ্দেশ্য। 

এ প্রসঙ্গে সিইসির প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি বলেন, উনি তো সবসময়ই এ রকম বলেন। একেকটা সময় একেকটা শব্দ চয়ন করেন, মিডিয়ায় প্রচার করার জন্য। এই কথাগুলো অপ্রাসঙ্গিক, তারপরও তিনি বলেন। অপপ্রচারমূলক কথা। নির্বাচন কমিশনকে অপবাদ দেওয়া কথা।

সিইসি বলেন, ভোটযুদ্ধ আছে ভোট নেই, তাহলে ৭৫ শতাংশ ভোটার কোথায় থেকে আসে। টেলিভিশনে দেখিয়েছেন সারিবদ্ধভাবে নারী-পুরুষ দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দেন। তাহলে এরা কারা? এরা কি ভোটার নয়? সুতরাং ওনার কথার কোনো সংগতি নেই। উনি এটা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বলেন। হয়তো ওনার কোনো এজেন্ডা আছে, সেটাই বাস্তবায়নের জন্য নির্বাচন কমিশনকে হেয় করতে এ কথা বারবার বলেন। এই কথাটা মিথ্যাচার, অপ্রাসঙ্গিক অপবাদ। উনি মিথ্যা কথা বলেন।

এর আগে, বুধবার (৫ জানুয়ারি) পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) ভোট পর্যবেক্ষণ শেষে মাহবুব তালুকদার বলেছিলেন, ভোটযুদ্ধে যুদ্ধ আছে, ভোট নেই। এ ছাড়া তিনি নিজেদের দায়স্বীকারমূলক মন্তব্যও করেন।

মতামত দিন