আন্তর্জাতিক

বাংলাদেশের দুই কোটি মানুষ বাস্তুচ্যুত হওয়ার আশঙ্কা জাতিসংঘের

২০৫০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের প্রায় দুই কোটি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা করছে জাতিসংঘ। কারণ,সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির ফলে ১৭ শতাংশ এলাকা পানিতে তলিয়ে যেতে পারে। সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) কাউন্সিলের ৪৮তম অধিবেশনে একটি প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে এ তথ্য তুলে ধরেন জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচেলেট।

তিনি জানান, মালদ্বীপের ৮০ শতাংশের বেশি স্থলভাগের অবস্থান সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে মাত্র এক মিটারের কম। এর মধ্যেই দেশটি মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে, যা সমুদ্রের মাত্রা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আরও খারাপ হবে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০৫০ সালের মধ্যে ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, থাইল্যান্ড এবং ভিয়েতনামসহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বেশির ভাগ অঞ্চলে দৈনিক উচ্চ জোয়ারের জেরে বন্যা হতে পারে। এ ছাড়া সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির ফলে ২০৫০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের প্রায় ১৭ শতাংশ এলাকা পানিতে তলিয়ে যেতে পারে। এর ফলে দেশের দুই কোটি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

পরিবেশগত দুর্যোগের কারণে বাস্তুচ্যুত হওয়া এশিয়ার একটি গুরুতর ঘটনা। প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৯ সালে চীন, বাংলাদেশ, ভারত এবং ফিলিপাইনে অন্যান্য দেশের তুলনায় দুর্যোগের কারণে বাস্তুচ্যুতির ঘটনা বেশি ঘটেছে, যা বিশ্বের মোট ৭০ শতাংশ

মতামত দিন