বাংলাদেশ

কোম্পানীগঞ্জে ফের সাংবাদিকের ওপর হামলা

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় আবারও এক সাংবাদিককে পিটিয়ে আহত করেছেন বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা অনুসারীরা। রোববার (১০ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টায় বসুরহাট মোশারফ হোসেন ডায়াবেটিক হাসপাতালের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

আহত মো. নাসির উদ্দিন (৪৩) ঢাকা প্রতিদিন ও নোয়াখালী প্রতিদিন পত্রিকার কোম্পানীগঞ্জে প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত। হামলার পর স্থানীয় লোকজন আহত অবস্থায় নাসির উদ্দিনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা নেওয়ার পর নিরাপত্তার কারণে তিনি অন্য স্থানে ঠাঁই নিয়েছেন।

আহত নাসির উদ্দিন জানান, গতকাল সন্ধ্যার দিকে বসুরহাট পৌরসভার দক্ষিণ গেটের মোশারফ হোসেন ডায়াবেটিক হাসপাতালের সামনে একটি চা–দোকানে তিনি বসে ছিলেন। এ সময় দলবল নিয়ে সেখানে হাজির হন আবদুল কাদের মির্জার ঘনিষ্ঠ অনুসারী পৌরসভা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হামিদ উল্লাহ। ফেসবুকে একটি পোস্টকে কেন্দ্র করে দুজনের মধ্যে বাগ্‌বিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে হামিদ উল্লাহর সঙ্গে থাকা ১০ থেকে ১২ জন সহযোগী তাঁকে (নাসিরকে) পিটিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করেন। 

নাসির আরও বলেন, ‘কোম্পানীগঞ্জে কারও ওপর হামলা চালাতে সুনির্দিষ্ট কোনো কারণ লাগে না। হামলার কিছুক্ষণ পর হামিদ ফোন করে ঘটনার জন্য ভুল স্বীকার করেছেন।’

এদিকে, সাংবাদিক নাসির উদ্দিনের ওপর হামলার অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করে হামিদ উল্লাহ বলেন, নাসিরসহ অন্য সব সাংবাদিকের সঙ্গে তাঁর সুসম্পর্ক রয়েছে। তাই হামলার প্রশ্নই ওঠে না। তবে তিনি শুনেছেন সাংবাদিক নাসির মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুদ্দিন আনোয়ার বলেন, নাসির উদ্দিনের ওপর হামলার ঘটনা তিনি শুনেছেন। তবে নাসির উদ্দিন এ বিষয়ে থানায় কোনো অভিযোগ করেননি। অভিযোগ করলে তদন্ত করে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

মতামত দিন