খেলাধুলা

রাতে লুক্সেমবার্গের বিপক্ষে নামছের পর্তুগাল, হাঙ্গেরির মুখোমুখি ইংল্যান্ড

বিশ্বকাপ বাছাইয়ের 'এ' গ্রুপের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে লুক্সেমবার্গের বিপক্ষে মাঠে নামছে পর্তুগাল। কাতার বিশ্বকাপে সরাসরি খেলতে চাইলে পা হড়কানো চলবে না সেলেকাওদের।

লুক্সেমবার্গের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে খুব যে একটা স্বস্তিতে আছে সেলেকাওরা, বিষয়টা তেমন নয়। শেষ ম্যাচে কাতারের বিপক্ষে জয় ফুরফুরে রেখেছে সান্তোস বাহিনীকে। যদিও ইনজুরির দুশ্চিন্তা তাড়া করছে তাদেরকে। ট্রিনকাও, রাফা সিলভা, দুয়ার্তে, গুয়েরেরো দলের সঙ্গে নেই বেশ অনেকদিন। এবার সে তালিকায় যোগ হলেন দিয়েগো জোতা। শেষ পর্যন্ত লিভারপুল ফরোয়ার্ডকে নিয়ে চেষ্টা করলেও খুব একটা ভালো খবর নেই তার পক্ষ থেকে।

অন্যদিকে, পর্তুগালের বড় ভরসার নাম ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ম্যাচের পর ম্যাচ তার উড়ন্ত ফর্ম এবং গোলস্কোরিং ক্ষমতা প্রতিপক্ষের থেকে এগিয়ে রাখছে সেলেকাওদের। সঙ্গে পেপে, রুবেন ডিয়াজ, ব্রুনো এবং সিলভাদের ছন্দ স্বপ্ন দেখাচ্ছে সান্তোসকে।

দিনের আরেক ম্যাচে একই সময় লন্ডনের ওয়েম্বলিতে হাঙ্গেরিতে আতিথ্য দেবে ইংল্যান্ড। আই গ্রুপে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে আছে থ্রি লায়নরা। ম্যাচের পর ম্যাচে টানা জয়, টেবিলের শীর্ষে তুলে রেখেছে সাউথগ্যাট বাহিনীকে।

এই ম্যাচে তাই পরিবর্তনের ডাক দিয়েছেন ইংলিশ বস। এক ঝাঁক তারকা ফুটবলার থাকায়, কাকে রেখে কাকে খেলাবেন এটা নিয়ে প্রায়ই চিন্তায় পড়তে হয় তাকে। এজন্য এবার ডাগ আউট ঝালাইয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। সে লক্ষ্যে পিকফোর্ডের জায়গায় গোলবারে আসবেন জন্সটন। অন্যদিকে, ওয়াকার এবং মিংস দলে ঢুকবেন ট্রিপিয়ার এবং কোডির বদলে। আর লুক শ এবং ফিলিপসকে নিয়ে শঙ্কা আছে ইনজুরির।

ইংলিশ কোচ গ্যারেথ সাউথগ্যাট বলেন, ‘আমার স্কোয়াড অনেক শক্তিশালী। আমি চাইলেও সবাইকে সব ম্যাচে খেলাতে পারছি না। এ ম্যাচে তাই আমরা পরিবর্তনের দিকে হাঁটব। নিয়মিত কয়েকজনকে বিশ্রাম দিয়ে ডাগ আউটের মানুষগুলোকে সুযোগ দিতে চাই এবার। আশা করি, আমার দলের জয়রথ এতো দ্রুত থামবে না।

মতামত দিন