সোমবার ২৭ জানুয়ারী ২০২০ | ০৯:৫৭:৫০

মোহনা সংবাদ ২৪ ডট কম

বেড়ানো: পৃথিবীখ্যাত মেরিন ড্রাইভ গ্রেট ওশান রোড

It Admin Mohona, Mohona Songbad | আপডেট: ২৩:৪১, জানুয়ারী ১৩, ২০২০

গ্রেট ওশান রোড একটি পরিপূর্ণ রোড ট্রিপ। মেলবোর্নের একদিক দিয়ে রওনা দিলে, আরেক দিক দিয়ে ফেরত আসা যায়। প্রায় ৭০০ থেকে ৭৫০ কিলোমিটার যাত্রা। সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিক হলো এই পুরো রাস্তার প্রতিটি কোণে কোণে লুকিয়ে আছে অজস্র সুন্দর প্রাকৃতিক দৃশ্য। যার মোটামুটি একটা অংশ দেখে মেলবোর্নে ফিরে আসতে দুই থেকে তিন দিন লাগে।

এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর টানা পাঁচ-ছয় মাস অফিস–বাড়ি করার পর মনটা আসলে হাঁপিয়ে উঠছে।

শিলাকে অর্থাৎ আমার স্ত্রীকে মনের এই গোপন ভাব বলতেই সে বলে উঠল, সামনে এক দিনের একটি ছুটি আছে শুক্রবার। সঙ্গে সোমবার ছুটি নিলে মোট চার দিনের লম্বা ছুটি। মেলবোর্নের স্বর্গখ্যাত গ্রেট ওশান রোড ঘুরে আসি।

‘উহু! ওটা দ্য গ্রেট ওশান রোড। সামনে একটি The বসবে।’

‘ওকে, ওকে। The-ই সই।’

সপ্তাহ দুই পরে নির্দিষ্ট দিনে বেরিয়ে পড়লাম দুজনে অজানার উদ্দেশ্যে। এ ক্ষেত্রে অজানা বলাটা সমীচীন হচ্ছে কি না, জানি না। কারণ, আমি ম্যাপ দেখে ও গুগল ঘেঁটে একটি যাত্রাপথের পরিকল্পনা করেছি। সঙ্গে দুই রাত দুই জায়গায় থাকার জন্য রুমও ভাড়া করে ফেলেছি। অস্ট্রেলিয়াতে অনেক রকম থাকার ব্যবস্থা আছে। ফাইভ স্টার হোটেল থেকে শুরু করে খুব কম ডলার খরচ করে ব্যাগপ্যাকার্স পর্যন্ত সব ব্যবস্থা আছে।

ব্যাগপ্যাকার্স আসলে একটি কম মূল্যের থাকার জায়গা। যেখানে একেকটা রুমে বেশ কয়েকটা দোতলা বেড থাকে। একটা ছোট হাতব্যাগ নিয়ে রাত কাটানোর সুব্যবস্থা। এ ক্ষেত্রে বাথরুম শেয়ার্ড হয়ে থাকে। তবে আমি ওসব ব্যাগপ্যাকার্স বা ফাইভ স্টার হোটেলের কোনোটাই বুক করিনি। আমি অন্যের বাসায় এক রুম বুক করেছি। অনেকটা আগের দিনের পেয়িং গেস্ট থাকার মতো। এটি একটি অ্যাপসের মাধ্যমে করা যায়, যার নাম এয়ারবিএনবি।

গাড়ির ড্রাইভিং সিটে যথারীতি আমি উঠে বসে আমার স্ত্রীকে উঠে পড়ার তাগাদা যখন দিচ্ছি, হঠাৎ লক্ষ্য করলাম সে ড্রাইভিং সিটের দরজা খুলে বলল, ‘নেমে এসো বলছি। আমি চালাব।’

কথা শুনে তো আমি মহাখুশি। কিন্তু মুখের সামনে একটি মৃদু মন খারাপ দেখিয়ে বললাম, ‘তোমার কষ্ট হবে না? কত দূর জার্নি বল তো।’

এ কথা বলতে বলতে আমি প্যাসেঞ্জার সিটে সুড়ুত করে ট্রান্সফার হয়ে গেলাম। মনে মনে ভাবি, যাক বাঁচা গেল। বসে বসে প্রকৃতির অপার সৌন্দর্য দেখব।

‘জয় নারী শক্তির জয়’, ‘জয় বঙ্গ রমণীর জয়’ বলে জয়ধ্বনি তুলে চলতে শুরু করল গাড়ি। মেলবোর্ন শহরটা পার হয়ে গাড়ি ছুটে চলছে মেলবোর্নের পশ্চিম দিক দিয়ে ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার বেগে।

মজার কথা হলো, যেই না মেলবোর্ন শহর খানিকটা পার হয়েছি, চোখ মেলে চেয়ে দেখি চারদিকে শুধু অবারিত সবুজ মাঠ। যত দূর চোখ যায় সবুজ আর সবুজ। বিজ্ঞানের ভাষায় ক্লোরফিলের জয়জয়কার। মেলবোর্ন যেহেতু একটু পাহাড়ি অঞ্চল, তাই দূরে বা অদূরে ছোটখাটো টিলা দেখা যাচ্ছে। সবুজ যেন দূরে ঢেউ খেলিয়ে চলছে আমাদের সঙ্গে। শিলাকে ঠায় রাস্তার ওপরে কড়া দৃষ্টি রেখে স্টিয়ারিং হাতে বসে থাকতে হচ্ছে আর আমি চারদিকের সবুজ চাদরে মোড়া প্রকৃতি দেখে আহা, আহা, করছি!

আমাদের প্রথম স্টপেজ হলো টরকোয়ে সমুদ্রসৈকত। দুপুর একটা নাগাদ পৌঁছে গেলাম সেখানে। হয়তো বিধাতার মনে ছিল অন্য ইচ্ছা। সেখানে আমরা যেন খুব বেশি সময় নষ্ট না করি, সে জন্য বোধ হয় আমরা পৌঁছানোর কিছুক্ষণের মধ্যেই প্রবল বাতাস আর তুমুল বৃষ্টি শুরু হলো। আকাশে মেঘমল্লার যেন যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে। সূর্য মামাকে মেঘ তার চাদর দিয়ে ঢেকে দিয়েছে। এরপরও সমুদ্রের জলরাশিতে একটা হালকা নীল রঙের ছোঁয়া রয়েছে।

এখানে একটা মজার ব্যাপার দেখলাম। সমুদ্রসৈকতের ওপরে একটু উঁচু জায়গায় যেখানে একটি পার্কের মতো আছে, সেখানে একটি পাবলিক টয়লেটও রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ানরা ট্যুরিস্টদের কথা বেশ চিন্তা করে দেখলাম। যেকোনো পাবলিক জায়গায় তারা একটি গণশৌচাগার করে রেখেছে এবং সেটা বেশ পরিষ্কার ও সুন্দরভাবে রক্ষণাবেক্ষণ করে। ভেতরে টিস্যু বা অন্য প্রয়োজনীয় জিনিস সব সময় পূর্ণই থাকে। স্বভাবতই ভীমরতি হওয়ার বয়সে আমার একটু পরপর প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে হয়।



অ্যাড বিভাগ

শিরোনাম »
বাংলাদেশে স্টার্টআপ ওয়ার্ল্ডকাপের আঞ্চলিক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন হাসপাতালে ২ নারীকে পিটিয়ে বিপাকে নাসিরউদ্দিনের মেয়ে ক্যারিয়ার নষ্টের জন্য কোহলিকে দায়ী করছেন রায়না ডানা মেলল দুই ইঞ্জিনের বৃহত্তম বিমান দেশে দিনের ভোট রাতে হয়: সংসদে রুমিন ফারহানা কর্ম পরিকল্পনা গ্রহণ এবং বাস্তবায়নের মাধ্যমে উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে হবে চীন ভ্রমণে নিরুৎসাহিত করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ধর্ম ব্যবহার করে কেউ যেন সাম্প্রদায়িকতা ছড়াতে না পারে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী বাণিজ্যমন্ত্রীর নামে ‘ভূয়া আইডি’ খোলা থেকে বিরত থাকার আহ্বান বাণিজ্য প্রসারে কাস্টমসের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ - নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী প্রতিবন্ধী ব্যক্তির তথ্য-উপাত্ত ব্যবহার নীতিমালা-২০২০ এর খসড়া চূড়ান্ত গণতান্ত্রিক অগ্রযাত্রায় আইনজীবীদের ঐক্যের বিকল্প নেই -স্পিকার সাকিব-শিশিরের জন্য নিজ হাতে রান্না করা খাবার পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী ইউরোপের একনিষ্ঠ মার্কিন আনুগত্য বিপর্যয়কর: জারিফ ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে আসামে সিরিজ বোমা বিস্ফোরণ ছায়া মেসিতে বার্সার আনলাকি থার্টিন বেজোসের আইফোন হ্যাক ঘিরে রহস্য ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে আচরণবিধি শুধু কাগজেই সরকারি ব্যবস্থাপনায় নিরাপদে হজ পালন করুন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শীতের মতো দুর্যোগেও সরকার জনগণের  পাশে আছে -- ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মিয়ানমারকে অবশ্যই আন্তর্জাতিক আদালতের রায় মানতে হবে -- তথ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তথ্য জমা দেয়ার আহ্বান মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর জনগণের মন থেকে কর প্রদানের ভীতি দূর করার আহ্বান ---জনপ্রশাসন  প্রতিমন্ত্রী সমাজ ব্যবস্থায় নারীর প্রতি পুরুষের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন সূচিত হচ্ছে ---গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী চট্টগ্রামে সমন্বিত পরিকল্পনা গ্রহণের আহ্বান স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর বাংলাদেশে বেভারেজ শিল্পখাতে থাই উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগের আহ্বান শিল্পমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবসে প্রধানমন্ত্রীর বাণী আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবসে রাষ্ট্রপতির বাণী টুঙ্গিপাড়ায় আ’লীগের যৌথসভায় প্রধানমন্ত্রী: মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন আমাদের মূল লক্ষ্য রোহিঙ্গাদের আশ্রয়: শেখ হাসিনার প্রতি গাম্বিয়ার বিচারমন্ত্রীর কৃতজ্ঞতা