বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১৫:৩১:৫৯

মোহনা সংবাদ ২৪ ডট কম

বেড়ানো: পৃথিবীখ্যাত মেরিন ড্রাইভ গ্রেট ওশান রোড

It Admin Mohona, Mohona Songbad | আপডেট: ২৩:৪১, জানুয়ারী ১৩, ২০২০

গ্রেট ওশান রোড একটি পরিপূর্ণ রোড ট্রিপ। মেলবোর্নের একদিক দিয়ে রওনা দিলে, আরেক দিক দিয়ে ফেরত আসা যায়। প্রায় ৭০০ থেকে ৭৫০ কিলোমিটার যাত্রা। সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিক হলো এই পুরো রাস্তার প্রতিটি কোণে কোণে লুকিয়ে আছে অজস্র সুন্দর প্রাকৃতিক দৃশ্য। যার মোটামুটি একটা অংশ দেখে মেলবোর্নে ফিরে আসতে দুই থেকে তিন দিন লাগে।

এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর টানা পাঁচ-ছয় মাস অফিস–বাড়ি করার পর মনটা আসলে হাঁপিয়ে উঠছে।

শিলাকে অর্থাৎ আমার স্ত্রীকে মনের এই গোপন ভাব বলতেই সে বলে উঠল, সামনে এক দিনের একটি ছুটি আছে শুক্রবার। সঙ্গে সোমবার ছুটি নিলে মোট চার দিনের লম্বা ছুটি। মেলবোর্নের স্বর্গখ্যাত গ্রেট ওশান রোড ঘুরে আসি।

‘উহু! ওটা দ্য গ্রেট ওশান রোড। সামনে একটি The বসবে।’

‘ওকে, ওকে। The-ই সই।’

সপ্তাহ দুই পরে নির্দিষ্ট দিনে বেরিয়ে পড়লাম দুজনে অজানার উদ্দেশ্যে। এ ক্ষেত্রে অজানা বলাটা সমীচীন হচ্ছে কি না, জানি না। কারণ, আমি ম্যাপ দেখে ও গুগল ঘেঁটে একটি যাত্রাপথের পরিকল্পনা করেছি। সঙ্গে দুই রাত দুই জায়গায় থাকার জন্য রুমও ভাড়া করে ফেলেছি। অস্ট্রেলিয়াতে অনেক রকম থাকার ব্যবস্থা আছে। ফাইভ স্টার হোটেল থেকে শুরু করে খুব কম ডলার খরচ করে ব্যাগপ্যাকার্স পর্যন্ত সব ব্যবস্থা আছে।

ব্যাগপ্যাকার্স আসলে একটি কম মূল্যের থাকার জায়গা। যেখানে একেকটা রুমে বেশ কয়েকটা দোতলা বেড থাকে। একটা ছোট হাতব্যাগ নিয়ে রাত কাটানোর সুব্যবস্থা। এ ক্ষেত্রে বাথরুম শেয়ার্ড হয়ে থাকে। তবে আমি ওসব ব্যাগপ্যাকার্স বা ফাইভ স্টার হোটেলের কোনোটাই বুক করিনি। আমি অন্যের বাসায় এক রুম বুক করেছি। অনেকটা আগের দিনের পেয়িং গেস্ট থাকার মতো। এটি একটি অ্যাপসের মাধ্যমে করা যায়, যার নাম এয়ারবিএনবি।

গাড়ির ড্রাইভিং সিটে যথারীতি আমি উঠে বসে আমার স্ত্রীকে উঠে পড়ার তাগাদা যখন দিচ্ছি, হঠাৎ লক্ষ্য করলাম সে ড্রাইভিং সিটের দরজা খুলে বলল, ‘নেমে এসো বলছি। আমি চালাব।’

কথা শুনে তো আমি মহাখুশি। কিন্তু মুখের সামনে একটি মৃদু মন খারাপ দেখিয়ে বললাম, ‘তোমার কষ্ট হবে না? কত দূর জার্নি বল তো।’

এ কথা বলতে বলতে আমি প্যাসেঞ্জার সিটে সুড়ুত করে ট্রান্সফার হয়ে গেলাম। মনে মনে ভাবি, যাক বাঁচা গেল। বসে বসে প্রকৃতির অপার সৌন্দর্য দেখব।

‘জয় নারী শক্তির জয়’, ‘জয় বঙ্গ রমণীর জয়’ বলে জয়ধ্বনি তুলে চলতে শুরু করল গাড়ি। মেলবোর্ন শহরটা পার হয়ে গাড়ি ছুটে চলছে মেলবোর্নের পশ্চিম দিক দিয়ে ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার বেগে।

মজার কথা হলো, যেই না মেলবোর্ন শহর খানিকটা পার হয়েছি, চোখ মেলে চেয়ে দেখি চারদিকে শুধু অবারিত সবুজ মাঠ। যত দূর চোখ যায় সবুজ আর সবুজ। বিজ্ঞানের ভাষায় ক্লোরফিলের জয়জয়কার। মেলবোর্ন যেহেতু একটু পাহাড়ি অঞ্চল, তাই দূরে বা অদূরে ছোটখাটো টিলা দেখা যাচ্ছে। সবুজ যেন দূরে ঢেউ খেলিয়ে চলছে আমাদের সঙ্গে। শিলাকে ঠায় রাস্তার ওপরে কড়া দৃষ্টি রেখে স্টিয়ারিং হাতে বসে থাকতে হচ্ছে আর আমি চারদিকের সবুজ চাদরে মোড়া প্রকৃতি দেখে আহা, আহা, করছি!

আমাদের প্রথম স্টপেজ হলো টরকোয়ে সমুদ্রসৈকত। দুপুর একটা নাগাদ পৌঁছে গেলাম সেখানে। হয়তো বিধাতার মনে ছিল অন্য ইচ্ছা। সেখানে আমরা যেন খুব বেশি সময় নষ্ট না করি, সে জন্য বোধ হয় আমরা পৌঁছানোর কিছুক্ষণের মধ্যেই প্রবল বাতাস আর তুমুল বৃষ্টি শুরু হলো। আকাশে মেঘমল্লার যেন যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে। সূর্য মামাকে মেঘ তার চাদর দিয়ে ঢেকে দিয়েছে। এরপরও সমুদ্রের জলরাশিতে একটা হালকা নীল রঙের ছোঁয়া রয়েছে।

এখানে একটা মজার ব্যাপার দেখলাম। সমুদ্রসৈকতের ওপরে একটু উঁচু জায়গায় যেখানে একটি পার্কের মতো আছে, সেখানে একটি পাবলিক টয়লেটও রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ানরা ট্যুরিস্টদের কথা বেশ চিন্তা করে দেখলাম। যেকোনো পাবলিক জায়গায় তারা একটি গণশৌচাগার করে রেখেছে এবং সেটা বেশ পরিষ্কার ও সুন্দরভাবে রক্ষণাবেক্ষণ করে। ভেতরে টিস্যু বা অন্য প্রয়োজনীয় জিনিস সব সময় পূর্ণই থাকে। স্বভাবতই ভীমরতি হওয়ার বয়সে আমার একটু পরপর প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে হয়।



অ্যাড বিভাগ

শিরোনাম »
২০৩০ সালের মধ্যে সব মাধ্যমিক বিদ্যালয় হবে ডিজিটাল মা-বাবার ভালোবাসায় ভাগ বসানোয় শিশু মিমকে হত্যা কোভিড-১৯ মহামারী ডিজিটাল পরিসেবার শক্তিকে উন্মোচিত করেছে: প্রধানমন্ত্রী মেট্রোরেলের সবকিছু ওলট-পালট করে দিয়েছে করোনা করোনায় আরও ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬৬৬ ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মির্জাপুরের মেয়র হলেন আ.লীগের সালমা কোভিড-১৯ মোকাবেলায় অনুদান গ্রহণ প্রধানমন্ত্রীর ওয়াইডব্লিউসিএ স্কুলের অভিভাবকদের সড়ক অবরোধ শীতে করোনার প্রকোপ বাড়ার আশঙ্কা প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী বিএনপির আন্দোলনের ডাক মিথ্যাবাদী রাখালের গল্পের মতো ট্রাম্পকে পাঠানো চিঠিতে বিষ সংকট নিরসনে সমুদ্রপথে আসছে পিয়াজ ভারতে করোনা শনাক্ত ৫০ লাখ ছাড়াল ওবায়দুল কাদেরকে পদত্যাগ করতে বললেন রিজভী তুরস্কের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কের ‘গভীরতার নেপথ্যে ডিসেম্বরের আগে স্কুল না খুললে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ‘অটো’ প্রমোশন রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে : প্রধানমন্ত্রী দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বাচ্চাদের ‘জীবন বদলে দেওয়া’ ডিভাইস দিচ্ছেন মেসি সাদেক বাচ্চুকে হারিয়ে শোকাহত চলচ্চিত্র অঙ্গন পরীক্ষা ছাড়াই সার্টিফিকেট পাবে শিক্ষার্থীরা অস্থির পেঁয়াজের বাজার দাম বাড়ছে হু হু করে করোনার হটস্পট এখন ভারত করোনার টিকা নিয়ে দারুন সুখবর দিল চীন শ্রীলঙ্কার শর্তে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ খেলা সম্ভব না পাপন তিন মাস আগেই অনুষ্ঠিত হবে সিটি নির্বাচন খুলনায় তিনজনকে কুপিয়ে জখম সিসিইউতে সম্রাট ১৫ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন ডাকাতির মামলায় র‍্যাবের সাবেক ৫ সদস্যের কারাদণ্ড পুলিশের সঙ্গে অপরাধীর সম্পর্ক থাকলে ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার