বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ | ১০:৪৫:৩১

মোহনা সংবাদ ২৪ ডট কম

ব্যারিস্টার রফিকের অবস্থা ক্রিটিক্যাল

It Admin Mohona, Mohona Songbad | আপডেট: ১২:১৬, অক্টোবর ২২, ২০২০

প্রবীণ আইনজীবী ও সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের শারীরিক অবস্থা ক্রিটিক্যাল।  তাকে হাসপাতালে লাইফ সাপোর্ট দিয়ে রাখা হয়েছে।  এ তথ্য জানিয়েছেন আদ-দ্বীন হাসপাতালের মহাপরিচালক ডা. নাহিদ ইয়াসমিন।

তিনি বলেন, ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের অবস্থা অবস্থা ক্রিটিক্যাল।  মঙ্গলবার রাত থেকে তার শরীর খারাপের দিকে যায়। অক্সিজেনের পরিমাণ কমে গেছে।  তাৎক্ষণিকভাবে তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেয়া হয়। পরে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে।  ডা. নাহিদ জানান, ব্যারিস্টার রফিক সাড়া দিচ্ছেন।

শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে রাজধানীর মগবাজারে অবস্থিত আদ-দ্বীন হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন ছিলেন সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ও সুপ্রিমকোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক-উল হক। গত শনিবার তিনি কিছুটা সুস্থ বোধ করলে সকালের দিকে রিলিজ নিয়ে বাসায় ফিরে যান।  কিন্তু দুপুরের পরপরই ফের তাকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে।

এর আগে গত ১৫ অক্টোবর সন্ধ্যায় আদ-দ্বীন হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে।  জানা গেছে, রক্তশূন্যতা, ইউরিন সমস্যাসহ বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছেন তিনি।  তিনি রিচমন্ড রোল্যান্ড গোমেজের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা নিচ্ছেন। 

এর আগে গত জুনে ডায়াবেটিস কমে যাওয়ায় শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তখনও আদ-দ্বীন হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণে ছিলেন।  তখন তিনি পল্টনের বাসায় অবস্থান করেই চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠেন।

৮৫ বছর বয়সী রফিক-উল হকের আইনজীবী হিসেবে কর্মজীবনের শুরু ১৯৬০ সালে কলকাতা উচ্চ আদালতে।

১৯৯০ সালে বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেল করা হয়েছিল তাকে।

সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে আইনজীবী হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন ব্যারিস্টার রফিক-উল হক।

ওই সময় তিনি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা এবং বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ অনেক রাজনীতিবিদের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টে আইনি লড়াই করেন।

ব্যারিস্টার রফিক-উল হক ১৯৩৫ সালের ২ নভেম্বর কলকাতার সুবর্ণপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৯০ সালের ৭ এপ্রিল থেকে একই বছরের ১৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত অ্যাটর্নি জেনারেল পদে কর্মরত ছিলেন। ২০১৭ সালে বাম পায়ের হাঁটুতে অস্ত্রোপচারের পর থেকে তার চলাফেরা সীমিত হয়ে পড়ে।  এ কারণে তিনি স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে না পারায় কোর্টে আসতে পারেননি।  বেশ কয়েক বছর ধরে বাসা আর হাসপাতালেই অবস্থান করছিলেন তিনি।



অ্যাড বিভাগ

শিরোনাম »
ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর শপথ নিলেন ফরিদুল হক খান ফোনে হুমকি পেয়ে সেদিন কেঁদে দিয়েছিলেন খাসোগি এশিয়া-প্যাসিফিকে বিশৃঙ্খলা নিয়ে মুখোমুখি যুক্তরাষ্ট্র-চীন বায়ুদূষণ রোধে কী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে জানতে চান হাইকোর্ট দেশে ডিজিটাল হেলথ আইডি কার্ড চালু ভ্যাকসিন না পেলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা কঠিন জাতীয় কমিটি বুকে হাত দিয়ে বলছি আমার ওই অভিজ্ঞতা নেই মঈন আলি ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নতুন নিষেধাজ্ঞা বাইডেন সরকারে মন্ত্রী হতে পারেন বাঙালি অরুণ মজুমদার সংসদে মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড বিল পাস এই ফান্ড কোথায় যায় ভবিষ্যতে এটার হিসাব নেওয়া শুরু করব দ্বিতীয়বার নমুনা পরীক্ষায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর করোনা নেগেটিভ ৪৫ মিনিট খেলার পর জানতে পারলেন করোনা পজিটিভ পিএসএলে টস জিতে ফিল্ডিংয়ে তামিমের লাহোর করোনায় চাকরি খুইয়ে পাইলট এখন ফুচকাওয়ালা আল কায়দা নেতা নিহতের বিষয়ে যা বলছে ইরান ১৯ উপজেলা-পৌরসভা-ইউপিতে ধানের শীষের টিকিট পেলেন যারা আমরা ওই অবস্থায় যেতে চাই না আগুন সন্ত্রাসের দাঁতভাঙা জবাব দেয়া হবে কাদের বাসে আগুনের ঘটনায় ৯ মামলা, আসামি ৪৪৬ ম্যাচ রেখে কোহলির সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্তের প্রশংসায় ল্যাঙ্গার পাকিস্তান শাসনে ৭৩ বছর ভোগান্তিতে পাক অধিকৃত কাশ্মীর বাইডেনকে শুভেচ্ছা জানালেন পোপ ফ্রান্সিস আফগানিস্তানে ভয়াবহ বিস্ফোরণে ১০ সেনা সদস্যসহ নিহত ১৩ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে কিনা সিদ্ধান্ত দু-একদিনের মধ্যে বিরোধিতাই বিএনপির একমাত্র রাজনৈতিক কৌশল সেতুমন্ত্রী মার্কিন জনগণই দেশটির নীতির প্রতি ভীষণভাবে ক্ষুব্ধ তুরস্কের পরিবর্তে দেশেই ইমামদের প্রশিক্ষণ দেবে জার্মানি র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলমকে বদলি বিএনপির বিরুদ্ধে কথা বলতে না চাইলেও তারা বাধ্য করে ওবায়দুল কাদের