বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ | ১৩:২৫:২১

মোহনা সংবাদ ২৪ ডট কম

ভয়াবহ ক্ষতি প্লাস্টিকের কাপে চা পানে

It Admin Mohona, Mohona Songbad | আপডেট: ১৬:৩৩, জুন ২৪, ২০১৯

চা একটি জনপ্রিয় পাণীয়। সারা দিনের কাজের ক্লান্তি দূর করতে এক কাপ চা বা কফির বিকল্প নেই। তবে এই চা বা কফি পানের ক্ষেত্রে সর্তক থাকতে হবে।সবার আগে দেখতে হবে কোন কাপে চা পান করছেন। কাপটি যদি প্লাস্টিকের হয় তবে ভুলেও এই কাপে চা পান করবেন না।

রাস্তার ধারের কোনও দোকানে দাঁড়িয়ে চা-কফি খাওয়া মানেই হলো বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই প্লাস্টিকের কাপে খাওয়া।এসব অভ্যাস ত্যাগ করুন।

গবেষকদের মতে, ভুলেও প্লাস্টিকের কাপে চা খাওয়া ঠিক নয়।

তাদের মতে, প্লাস্টিকের তৈরি পানির বোতল ও শিশুদের দুধের বোতল, প্লাস্টিকের পাত্রের খাবার মাইক্রোওয়েভেনে গরম করা, প্লাস্টিক মোড়কে বিক্রি হওয়া খাবার ডেকে আনছে এমন নানা রোগ।

গবেষকদের মতে, প্লাস্টিকের মধ্যে থাকা বিসফেনল-এ নামের টক্সিক এ ক্ষেত্রে বড় ঘাতক। গরম খাবার বা পানীয় প্লাস্টিকের সংস্পর্শে এলে ওই রাসায়নিক খাবারের সঙ্গে মেশে। এটি নিয়মিত শরীরে ঢুকলে নারীদের ইস্ট্রোজেন হরমোনের কাজের স্বাভাবিকতা বিঘ্নিত হয়। পুরুষদের ক্ষেত্রে শুক্রাণু কমে যায়।

এছাড়া হার্ট, কিডনি, লিভার, ফুসফুস এবং ত্বকও মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। এমনকী, স্তন ক্যানসার হওয়ার আশঙ্কাও থাকে।

গবেষণায় থেকে আরো জানা যায়, প্লাস্টিকের কাপ তৈরিতে যে উপাদান ব্যবহার করা হয়, সেগুলি বেশি মাত্রায় শরীরে প্রবেশ করলে ক্লান্তি, হরমোনের ভারসাম্যতা হারানো, মস্তিষ্কের ক্ষমতা কমে যাওয়া-সহ একাধিক রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

যেমন, বোতল বা পাত্র তৈরিতে ব্যবহৃত পলিভিনাইল ক্লোরাইডকে (পিভিসি) নরম করা হয় থ্যালেট ব্যবহার করে। এই থ্যালেট আমাদের শরীরের পক্ষে বিষ।

শরীরে এই রাসায়নিক নিয়মিত ঢুকতে থাকলে শ্বাসকষ্ট, স্থূলতা, টাইপ ২ ডায়াবিটিস, কম বুদ্ধাঙ্ক, অটিজম, ব্রেস্ট ক্যানসারের মতো অসুখ শরীরে বাসা বাঁধে। তাই দীর্ঘদিন সুস্থ শরীরে বাঁচতে এখই বর্জন করুন, এড়িয়ে চলুন প্লাস্টিকের কাপ, গ্লাস, পাত্র।



অ্যাড বিভাগ

শিরোনাম »
ঝুঁকিতে থাকা দেশগুলোকে বাড়তি অর্থ প্রদানের আহ্বান শেখ হাসিনার কুয়েতের আমিরের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক বৃহস্পতিবার ইউএনও ওয়াহিদা খানমকে ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে দলীয় প্রার্থী নিয়ে আ.লীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি রিফাত হত্যায় স্ত্রী আয়শাসহ ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড কভিড সংকট মোকাবিলায় প্রয়োজন সমন্বিত রোডম্যাপ প্রধানমন্ত্রীর ধানমন্ডিতে নির্মাণাধীন ভবনের কার্নিশ ভেঙে ৩ জনের মৃত্যু ২০৩০ সালের মধ্যে সব মাধ্যমিক বিদ্যালয় হবে ডিজিটাল মা-বাবার ভালোবাসায় ভাগ বসানোয় শিশু মিমকে হত্যা কোভিড-১৯ মহামারী ডিজিটাল পরিসেবার শক্তিকে উন্মোচিত করেছে: প্রধানমন্ত্রী মেট্রোরেলের সবকিছু ওলট-পালট করে দিয়েছে করোনা করোনায় আরও ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬৬৬ ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মির্জাপুরের মেয়র হলেন আ.লীগের সালমা কোভিড-১৯ মোকাবেলায় অনুদান গ্রহণ প্রধানমন্ত্রীর ওয়াইডব্লিউসিএ স্কুলের অভিভাবকদের সড়ক অবরোধ শীতে করোনার প্রকোপ বাড়ার আশঙ্কা প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী বিএনপির আন্দোলনের ডাক মিথ্যাবাদী রাখালের গল্পের মতো ট্রাম্পকে পাঠানো চিঠিতে বিষ সংকট নিরসনে সমুদ্রপথে আসছে পিয়াজ ভারতে করোনা শনাক্ত ৫০ লাখ ছাড়াল ওবায়দুল কাদেরকে পদত্যাগ করতে বললেন রিজভী তুরস্কের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কের ‘গভীরতার নেপথ্যে ডিসেম্বরের আগে স্কুল না খুললে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ‘অটো’ প্রমোশন রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে : প্রধানমন্ত্রী দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বাচ্চাদের ‘জীবন বদলে দেওয়া’ ডিভাইস দিচ্ছেন মেসি সাদেক বাচ্চুকে হারিয়ে শোকাহত চলচ্চিত্র অঙ্গন পরীক্ষা ছাড়াই সার্টিফিকেট পাবে শিক্ষার্থীরা অস্থির পেঁয়াজের বাজার দাম বাড়ছে হু হু করে করোনার হটস্পট এখন ভারত